প্রদীপ কুমার সিংহ, বারুইপুর; ছেলে হয়েছে সেই আনন্দে নার্সিং হোম থেকে বাড়িতে খবর দিয়ে এবং ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী বাড়ি থেকে বাচ্চার কিছু কাপড় চোপড় আনতে গিয়েছিল ঢোষা চন্দনেশ্বরে বাড়ি পেশায় মুদি ব্যবসায়ী পিংকু তরফদার। পিংকুর বিবাহ হয় দু বছর আগে। নার্সিং হোমে যাওয়ার সময় বেপরোয়া অটোটি ঢোষার ২ নং পোলের কাছে উল্টে যায়। মৃত্যু হয় বছর ২৫ এর পিঙ্কুর।

রবিবার সূর্য্যপুরে এক প্রাইভেট নার্সিং হোমে পুত্র সন্তানের জন্ম হয় পিঙ্কুর স্ত্রীর। ডাক্তারের কথা মত বাড়ি থেকে নিজে একটা অটো রিজার্ভ করে নার্সিং হোমে আসছিল ছেলে ও স্ত্রীর কাছে। অটো এত জোরে চালিয়েছিল, অটোর ড্রাইভার ঢোষার ২ নং পোলের কাছে আসতেই অটোর চাকা রাস্তায় পিছলে গিয়ে অটো উল্টে যায় রাস্তার মধ্যে। ড্রাইভার অটো ছেড়ে পালিয়ে যায়। আর গাড়ির মধ্যে একা পিংকু আহত অবস্থায় পরে থাকে। পরে রাস্তার কিছু পথ চলতি মানুষ পিংকুকে নিয়ে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডাক্তার মৃত বলে ঘোষণা করে। ডাক্তারের অনুমান, পিংকুর বুকে গুরুতর আঘাত লাগার কারনে মৃত্যু হয় পিংকুর। ঘন্টা দুয়েক আগে পিংকুর ছেলে হয়েছে, তার খবর বাড়িতে দিতে গিয়েছিল এবং কাপড় চোপড় আনতে গিয়েছিল। বারুইপুর থানার পুলিশ পিংকুর দেহটি ময়না তদন্তের জন্যে নিয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here