সত্যজিৎ ব্যানার্জি, বারুইপুর; সাড়ে ৮ বছরের মেয়েকে মাদ্রাসায় দেখতে সাইকেলে করে স্ত্রীকে নিয়ে বারুইপুরের ফুলতলার দিক থেকে সীতাকুণ্ডুর দিকে আসছিল স্বামী। উল্টো দিক সীতাকুন্ডু থেকে ফুলতলার দিকে আসছিল লরি। সাইকেলের একেবারে সামনে এসে যায় লরি। আচমকা সাইকেল আরোহী স্বামী নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পড়ে গেলে তার স্ত্রীও উল্টে পড়ে গেলে লরির পিছনের চাকা তার মাথার উপর দিয়ে পিষে চলে গেলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার স্ত্রীর।

মৃতার স্বামী আনোয়ার হোসেন মোল্লা (বামদিক থেকে দ্বিতীয়)

স্বামীর সামনেই স্ত্রীর এই মর্মান্তিক মৃত্যু হয়। আহত হয় তার স্বামী। মৃতার নাম জাহানারা বিবি(৩৪)। এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে রবিবার সকালে বারুইপুরের সীতাকুন্ডু মোড়ের ঠিক কাছেই। আহত অবস্থায় স্বামী আনোয়ার হোসেন মোল্লাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। ঘটনাস্থলে যায় বারুইপুর থানার পুলিশ। উত্তেজিত বাসিন্দারা ঘাতক লরিটিকে আটক করলেও চালক পলাতক। পুলিশ চালকের সন্ধানে তল্লাশি শুরু করেছে। মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ঘটনা প্রসঙ্গে স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে খবর, সোনারপুরের কালিকাপুর বেনিয়া বউ এলাকার বাসিন্দা রাজমিস্ত্রি আনোয়ার হোসেন মোল্লা এদিন সকালে তার স্ত্রীকে সাইকেলের পিছনে বসিয়ে বারুইপুরের চিত্তশালি মাদ্রাসায় তার সাড়ে ৮ বছরের মেয়েকে দেখতে আসছিলেন। ফুলতলা দিয়ে ঘুরে সীতাকুন্ডুর দিকে আসছিলেন। পথে চাম্পাহাটির দিক থেকে আসা স্টোন চিপ লরি তার সাইকেলের সামনে এসে পড়লে এই দুর্ঘটনা ঘটে যায়। চোখের সামনে স্ত্রীর মৃত্যুর এই ঘটনায় স্বামী আনোয়ার হোসেন মোল্লা বার বার অজ্ঞান হয়ে যাচ্ছেন। ঘটনাস্থলে আসেন বারুইপুরের জেলা পরিষদের তৃনমূল কংগ্রেস প্রার্থী আবু তাহের সরদার। তিনি উদ্ধারের কাজে তদারকি করেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, আগেও এই জায়গাতে দুর্ঘটনা ঘটেছে। বাম্পার বসাতে হবে ওই জায়গায়।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here