চিত্র গ্রহণে: অমিত পাল

সত্যজিৎ ব্যানার্জি, বারুইপুর; হাসপাতাল থেকে রোগীদের ছোট খাটো কেসে রেফার করা হচ্ছে, কেন এই রেফার হবে। চিকিৎসকরা যদি এসএসকেএম বা অন্য কোন সরকারি হাসপাতালে রোগীদের রেফার করে, আগে সেখানে চিকিৎসকরা ফোন করে জেনে নিক সেখানে বেড আছে কিনা। বেড এভ্যালেবেল থাকলে তবেই রোগীকে পাঠান, না হলে এ হাসপাতাল সেই হাসপাতাল ঘুরতে ঘুরতে দেখা যাবে রোগী মারা গিয়েছে। চিকিৎসকদের রোগী দেখার পাশাপাশি এটাও দেখতে হবে। হাসপাতালে ফোন করে দেখতে হবে। দক্ষিন ২৪ পরগনা জেলা শাসক ওয়াই রত্নাকর রাও ও জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডঃ সোমনাথ মুখোপাধ্যায়কে এই ব্যাপারে মঞ্চ থেকেই কড়া ভাবে দেখার নির্দেশ দিলেন বিধানসভার অধ্যক্ষ তথা বারুইপুর পশ্চিমের বিধায়ক বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

চিত্র গ্রহণে: অমিত পাল

বৃহস্পতিবার দুপুরে বারুইপুরের রবীন্দ্র ভবনে জেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান সমিতির পরিচালনায় নব নিযুক্ত আশা কর্মীদের সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে এই কথা বলেন অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। এর পাশাপাশি অধ্যক্ষ আশা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে মায়েদের বুঝিয়ে প্রাতিষ্ঠানিক প্রসবের ব্যাপারে দায়িত্ব নিতে হবে আশা কর্মীদের।

চিত্র গ্রহণে: অমিত পাল

এদিন উপস্থিত ছিলেন জেলা শাসক ওয়াই রত্নাকর রাও, এডিএম (জেলা পরিষদ) শ্যামা পারভিন, জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিক ডঃ সোমনাথ মুখোপাধ্যায়, বারুইপুর মহকুমা শাসক দেবারতি রায়, ক্যানিং মহকুমা শাসক অদিতি চৌধুরী, জেলা পরিষদের স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ তরুন রায়, জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ আবু তাহের সরদার, বারুইপুর মহকুমা স্বাস্থ্য আধিকারিক মৃদুল ঘোষ, বিধায়ক ফিরদৌসী বেগম, ভাইস চেয়ারম্যান গৌতম দাস।

চিত্র গ্রহণে: অমিত পাল

এদিন বারুইপুর ও ক্যানিং মহকুমার ১০ জন আশা কর্মীকে সম্বর্ধনা দেওয়া হয়। ১৬ টি ব্লকের ৩২৮ জন আশা কর্মী ছিল।

এদিন দক্ষিন ২৪ পরগনার জেলাশাসক ওয়াই রত্নাকর রাও বলেন, জেলায় প্রাতিষ্ঠানিক প্রসব মার্চ মাস পর্যন্ত ৯৮ শতাংশ কমপ্লিট হয়ে গিয়েছে। নিত্য মনিটর করা হচ্ছে, ১০০ শতাংশ লক্ষ্য মাত্রা পূরণ করা হবে। আশা কর্মীদের এই ব্যাপারে আরও দায়িত্ব নিতে হবে। এছাড়া ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া রোধে আগে থেকে মানুষকে সচেতন করার ব্যবস্থা নিতে হবে। আগে থেকেই সচেতন করতে হবে মানুষকে। এদিনের অনুষ্ঠানে বারুইপুর ও ক্যানিং মহকুমার বিডিও, ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here