সত্যজিৎ ব্যানার্জি, বারুইপুর; গোপন সুত্রে খবর পেয়ে বারুইপুর থানার পুলিশ বৃহস্পতিবার ভোরে বারুইপুরের বেলেগাছির বিদ্যাধর পল্লি থেকে এক দুষ্কৃতীকে হাতে নাতে গ্রেপ্তার করল। ধৃতের নাম ক্ষিতীশ দেউড়ি। তার কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি বন্দুক, দুটি চপার ও একটি ধারালো ছুরি। এই ঘটনাকে ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

ধৃতের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করেছে বারুইপুর থানার পুলিশ। ধৃত ওই ব্যক্তি অস্ত্র ব্যবসায়ী কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কী কারণে ক্ষিতীশ বাড়িতে আগ্নেয়াস্ত্র ও ধারালো অস্ত্রগুলি রেখেছিল, তাও তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ধৃত ক্ষিতীশ দেউড়ি

এদিন গোপন সূত্রে বারুইপুর থানার পুলিশের কাছে খবর আসে, ক্ষিতীশের বাড়িতে আগ্নেয়াস্ত্র লুকিয়ে রাখা আছে। বুধবার রাতে এই খবর পেয়ে পুলিশ ওই বাড়িতে হানা দেয়। তদন্তকারী পুলিশ আধিকারিকরা জানান, ধৃত ব্যক্তি অসামাজিক কাজের সঙ্গে জড়িত বলে মনে করা হচ্ছে। তাকে জেরা করে তার সঙ্গে আর কেউ আছে কি না, তা দেখা হবে। ধৃত ক্ষিতীশ দেউড়ি ডাকাতির উদ্দেশেই বাড়িতেই অস্ত্র মজুত করে রেখেছিল বলে পুলিশ সুত্রে খবর। প্রসঙ্গত, বারুইপুরের বেলেগাছিতে কিছু দিন আগেও বোমা-গুলি চলেছিল। প্রায়ই ওই এলাকায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে দুষ্কৃতীদের তান্ডব চলে বলে অভিযোগ। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। প্রতিবেশীদের সঙ্গেও কথা বলছেন পুলিশের তদন্তকারী অফিসাররা। তাদের মধ্যে কেউ কেউ এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে বলে সন্দেহ তদন্তকারীদের একাংশের। ধৃতকে এদিন দুপুরে বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here