সত্যজিৎ ব্যানার্জি, বারুইপুর; রাতের অন্ধকারে গ্রিলের দরজার তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দুটি ঘরের আরও দুটি তালা ভেঙে আলমারি খুলে নগদ ৩০ হাজার টাকা, লক্ষাধিক টাকার সোনা-হিরের গয়না, ক্যামেরা, সেট টপ বক্স, এলসিডি টিভি, এমনকি রান্নাঘরের গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে চম্পট দিল দুষ্কৃতীর দল। ঘটনাটি ঘটে বারুইপুরের পশ্চিম সালেপুর এলাকায় বৃহস্পতিবার রাতে। এই দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। বারুইপুর থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। বারুইপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে পরিবারের লোকজন।

ঘটনা প্রসঙ্গে, বারুইপুরের পশ্চিম সালেপুরের বাসিন্দা তৃনমূল কংগ্রেসের বুথ সভাপতি অবসর প্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্মী করিম বক্সী জানান, আমাদের দু’তলা বাড়ি। আমি আমার স্ত্রী দু’তলায় ছিলাম। একতলাতে আমার ছেলে ওয়াসিম তার স্ত্রীকে নিয়ে থাকে। গত পরশু দিন শ্বশুরবাড়ি গিয়েছিল তারা। এদিন তারা চুরির খবর পেয়ে বাড়িতে আসে। গ্রিলের তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দুটি ঘরের আরও দুটি তালা ভাঙে দুষ্কৃতীরা। এই প্রসঙ্গে গৃহবধূ সাহানী ইসলাম জানান, দুটি ঘরের আলমারি, বক্স, লকার থেকে তারা ৬ ভরি সোনা-হিরের গয়না, নগদ ৩০ হাজার টাকা, ঘড়ি, ক্যামেরা, এমনকি এলসিডি টিভি, সেট টপ বক্স, গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে চম্পট দিয়েছে বাড়ির পিছন দিয়ে। এর জেরে আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। স্থানীয় বাসিন্দারা এই ঘটনায় পুলিশি নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, কোন চেনা ব্যক্তির পরিকল্পনা মাফিক বাড়িতে রাতে না থাকা অবস্থার সুযোগ নিয়ে এই কাজ করেছে, তদন্ত চলছে।

Leave a Reply